মুসলিম সম্পত্তির উত্তরাধিকারের নিয়মঃ

 

মুসলিম উত্তরাধিকার আইন কুরআন, সুন্নাহ, ইজমা ও কিয়াসের উপর প্রতিষ্ঠিত। এ চার বিধান অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির সম্পদ বণ্টন করা ফারায়েজ বলে।

সুন্নি মুসলমানগণের সম্পত্তির উত্তরাধিকার, হানাফি আইন দ্বারা পরিচালিত বিধায় নিম্নে হানাফী আইনের উত্তরাধিকার উল্লেখ করা হলঃ

মৃত ব্যক্তির দাফন-কাফন খরচ পরিচালনা, ঋণ থাকলে তা পরিশোধ করা, কারো অনুকূলে সম্পত্তি উইল বা অছিয়ত করে থাকলে সে ব্যক্তিকে সম্পত্তি প্রদানের পর যে সম্পত্তি বাকী থাকবে, তা জীবিত উত্তরাধিকারদের মধ্যে বণ্টিত হবে।
প্রাথমিক উত্তরাধিকারী ৬ জন, যারা কখনো সম্পত্তি প্রাপ্তি হতে বঞ্চিত হয় না। যথা- (১) পিতা (২) মাতা (৩) স্বামী (৪) স্ত্রী (৫) পুত্র (৬) কন্যা। এই ৬ জন উত্তরাধিকারী নিম্নলিখিত ভাবে সম্পত্তি পাবে-

পিতাঃ মৃত ব্যক্তির সম্পদের উপর তাঁর পিতা ৩ (তিন) প্রকারে সম্পদ পাবেন, যথা-

১। যদি মৃত ব্যক্তির পুত্র, পুত্রের পুত্র কিংবা আরও নিচে পুত্রের পুত্রের পুত্র যত নিচেই হোক না কেন থাকে, তবে মৃত ব্যক্তির পিতা পাবেন সম্পদের ছয় ভাগের এক ভাগ (১/৬)।

২। যদি মৃত ব্যক্তির কোন পুত্র কিংবা নিন্মগামী পুত্র না থাকে কেবল কন্যা থাকে, তবে ছয় ভাগের এক ভাগ ( ১/৬) পাবেন এবং কন্যাদের ও অন্যান্যদের দেয়ার পর যে সম্পত্তি অবশিষ্ট থাকবে তাও পাবেন।

৩। যদি মৃত ব্যক্তির কোন সন্তান না থাকে, তবে বাদ বাকী অংশীদারদের দেয়ার পর সকল সম্পত্তি পিতা পাবেন।

মৃত ব্যক্তির কোন সন্তান না থাকলে যদি পিতাও না থাকে, তবে তাঁর জীবিত ভাই সম্পত্তি পাবে, ভাই না থাকলে ভাইয়ের সন্তান পাবে।


 

 

জমি-জমা ও দলিল রেজিস্ট্রি সংক্রান্ত সকল তথ্যের জন্য এখানে ক্লিক করুন।


 

 

মাতাঃ মৃত ব্যক্তির মাতা ৩ (তিন) ভাবে সম্পদ পাবেন, যথা-

১। যদি মৃত ব্যক্তির কোন সন্তান বা পুত্রের সন্তানাদি, যত নিম্নেরই হউক, থাকলে অথবা যদি পূর্ণ, বৈমাত্রেয় বা বৈপিত্রেয় ভাই বা বোন থাকে তবে মাতা ছয় ভাগের এক ভাগ ( ১/৬) পাবেন।

২। যদি মৃত ব্যক্তির কোন সন্তান বা পুত্রের সন্তানাদি, যত নিম্নের হউক না থাকে এবং যদি একজনের বেশি ভাই বা বোন না থাকে তবে মাতা তিন ভাগের এক ভাগ ( ১/৩) পাবেন।

৩। যদি মৃত ব্যক্তির কোন সন্তান বা পুত্রের সন্তানাদি, যত নিম্নের হউক না থাকে অথবা কমপক্ষে দুইজন ভাইবোন না থাকে এবং যদি মৃত ব্যক্তির স্বামী বা স্ত্রী অংশ দেয়ার পর যা অবশিষ্ট থাকবে তার তিন ভাগের এক ভাগ ( ১/৩) মাতা পাবেন।


 

স্বামীঃ স্বামী ২ (দুই) ভাবে মৃত স্ত্রীর সম্পত্তি পাবে, যথা-

১। যদি মৃত ব্যক্তির সন্তান-সন্ততি থাকে তবে স্বামী পাবে এক চতুর্থাংশ।

২। যদি মৃত ব্যক্তির সন্তান-সন্ততি না থাকে তবে স্বামী পাবে অর্ধেক সম্পত্তি।


 

স্ত্রীঃ স্ত্রী, মৃত স্বামীর সম্পত্তি ২ (দুই) ভাবে পাবে, যথা-

১। যদি মৃত ব্যক্তির এবং তাঁর স্ত্রীর সন্তান বা পুত্রের সন্তান থাকে তবে স্ত্রী স্বামীর সম্পত্তির আট ভাগের এক ভাগ (১/৮) পাবেন।

২।যদি মৃত ব্যক্তি এবং তাঁর স্ত্রীর সংসারে কোন সন্তান না থাকে তাহলে স্ত্রী মোট সম্পত্তির চার ভাগের এক ভাগ (১/৪) পাবেন।


 

পুত্রঃ পুত্র সকল ক্ষেত্রেই মৃত ব্যক্তির সম্পদ পেয়ে থাকে। এছাড়া, মৃত ব্যক্তির সম্পত্তি সকলের অংশ ভাগের পর অবশিষ্ট সকল অংশ পুত্র-কন্যারা পাবে। এক্ষেত্রে পুত্র যে পরিমান সম্পত্তি পাবে, কন্যা তার অর্ধেক পরিমাণ পাবে। তবে যদি কন্যা না থাকে, বাকী সম্পত্তি সম্পূর্ণ অংশ পুত্র পাবে।


 

কন্যাঃ মৃতের কন্যা ৩ (তিন) নিয়মে মৃতের সম্পদ পেয়ে থাকে, যথা-

১। যদি মৃত ব্যক্তির একজন কন্যা থাকে, তবে সে সম্পদের দুইভাগের একভাগ (১/২) পাবে।

২। যদি মৃত ব্যক্তির একাধিক কন্যা থাকে, তবে সব কন্যা একত্রে তিন ভাগের দুই ভাগ সম্পত্তি পাবে।

৩। যদি মৃত ব্যক্তির পুত্র-কন্যা উভয়েই থাকে, তবে পুত্র যে পরিমাণ সম্পত্তি পাবে, কন্যা তাঁর অর্ধেক পাবে।


 

দাদাঃ পিতার পিতা অর্থাৎ পিতামহ বা এর যত উপরে হোক না কেন, নিম্নলিখিত ভাবে মৃতের সম্পত্তি পাবে-

১। মৃতের পিতা জীবিত থাকলে দাদা সম্পত্তি পাবে না।

২। মৃতের পুত্র বা পুত্রের পুত্র থাকলে দাদা মোট সম্পত্তির (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।

৩। মৃতের পুত্র সন্তান না থাকলে বা পুত্রের সন্তান (এভাবে নিচের দিকে) শুধু কন্যা হলে কন্যা সন্তানের সংগে দাদা মোট সম্পত্তির (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে এবং কন্যা বা পুত্রের কন্যাদের অংশ প্রদানের পর যা বাকী থাকবে, দাদা আসাবা হিসেবে তাও পাবে।

৪। মৃতের কোন সন্তান বা সন্তানের সন্তান (এভাবে নিচের দিকে) না থাকলে, অন্যান্যদের দেওয়ার পর দাদা আসাবা হিসেবে বাকী সমুদয় সম্পত্তি পাবে।


 

নানী ও দাদীঃ প্রকৃত নানী ও দাদী (যত উপরেই হোক)

১। নানী বা দাদীগণ মৃতের সম্পত্তির (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।

২। মৃতের পিতা বা মাতা জীবিত থাকলে নানী বা দাদীগণ কোন সম্পত্তি পাবে না।


 

পুত্রের কন্যাঃ পুত্রের কন্যা বা পুত্রের পুত্রের কন্যার অবস্থা (এভাবে যত নিচেই হোক) নিম্নলিখিত ধরনের হবে-

১। মৃত ব্যক্তির কন্যা থাকলে, পুত্রের কন্যা কোন সম্পত্তি পাবে না।

২। মৃত ব্যক্তির একাধিক কন্যা জীবিত থাকলে, পুত্রের কন্যাগণ কোন সম্পত্তি পাবে না।

৩। মৃত ব্যক্তির একটি মাত্র কন্যা থাকলে মৃত পুত্রের কন্যাগণ (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।

৪।পুত্রের কন্যা একজন হলে সম্পত্তির দুই ভাগের একভাগ পাবে।

৫। পুত্রের কন্যার সংখ্যা একাধিক হলে সকলে মিলে সম্পত্তির তিন ভাগের দুই ভাগ পাবে।

৬। মৃত ব্যক্তির পুত্রের পুত্র বা তার পুত্র (যত নিচে হোক) থাকলে, পুত্রের কন্যাগণ পুত্রের সাথে আসাবা হিসেবে সম্পত্তি প্রাপ্ত হবে এবং কন্যা, পুত্রের অর্ধেক সম্পত্তি পাবে।


 

বৈপিত্রেয় ভাইঃ বৈপিত্রেয় ভাই তিন ভাবে মৃতের সম্পত্তি পাবে, যথা-

১। একজন হলে (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।

২। দুই বা ততোধিক হলে (১/৩) তিন ভাগের এক ভাগ পাবে।

৩। মৃতের সন্তান বা পুত্রের সন্তান (এভাবে যত নিচে হোক), পিতা বা দাদা জীবিত থাকলে বৈপিত্রেয় বা বৈমাত্রেয় ভাই বা বোন কোন সম্পত্তি পাবে না।


 

মুসলিম ফারায়েজ আইনের আরও কিছু দিক নিম্নে তুলে ধরা হলঃ

নিকটবর্তী ওয়ারিশের কারণে দূরবর্তী ওয়ারিশ সম্পত্তি পাবে না। যেমন-পিতা থাকলে, দাদা সম্পত্তি পাবে না।


মৃত্যুকালে যার দ্বারা সম্পর্কযুক্ত, তিনি বেঁচে থাকলে পরবর্তী সম্পর্কযুক্ত ব্যক্তি সম্পত্তি পাবে না। যেমন- ভাই বেঁচে থাকলে, ভাইয়ের পুত্র সম্পত্তি পাবে না।


মৃত ব্যক্তির পিতাকে ১/৬ অংশ, মাতাকে ১/৬ অংশ, স্ত্রীকে ১/৮ অংশ দেবার পর বাকী সম্পত্তি পুত্র-কন্যা পাবে।


 

মৃত ব্যক্তির কোন পুত্র না থাকলে স্ত্রীকে ১/৮ অংশ, কন্যাকে ১/২ অংশ, মাতাকে ১/৬ অংশ দেওয়ার পর বাকী অংশ পিতা পাবে। পিতা না থাকলে সেই অংশ ভাই-বোনেরা পাবে।


 

স্বামী/স্ত্রী বেঁচে থাকলে স্বামী/স্ত্রীর অংশ দেওয়ার পর মাতা অবশিষ্ট সম্পত্তির (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।


 

পুত্র বা পিতার বর্তমানে ভাই/বোন ওয়ারিশ হয় না ।


স্বামী-স্ত্রী, পিতা-মাতা, পুত্র-কন্যা বা ভাই-বোন না থাকলে দূরবর্তী আত্মীয়গণ সম্পত্তি পাবে।


মৃত ব্যক্তি নিঃসন্তান হলে পিতা (২/৩) তিন ভাগের দুই ভাগ, মাতা (১/৩) তিন ভাগের এক ভাগ পাবে।


পিতা, মাতা ও সন্তান না থাকলে বোন (১/২) অর্ধেক পাবে। বোন একাধিক হলে (২/৩) তিন ভাগের দুই ভাগ পাবে, ভাই ও বোন উভয়ই থাকলে ভাই বোনের দ্বিগুন পাবে।


নিঃসন্তান বোনের সম্পত্তি ভাই পাবে।


লিঙ্গ নির্ধারনে সমস্যা রয়েছে, এমন সন্তানকে মেয়ে হিসেবে গণ্য করে সম্পদ বন্টন করতে হবে।


গর্ভস্থ সন্তানকে জীবিত হিসেবে গণ্য করে উত্তরাধিকার নির্ধারিত হবে। গর্ভস্থ সন্তানকে পুত্র গণ্য করে অথবা তার জন্মের পর সম্পদ বন্টন করতে হবে।


মৃত ব্যক্তির দেনা থাকলে, প্রাপ্য সম্পত্তির আনুপাতিক হারে ওয়ারিশদেরকে দেনা পরিশোধ করতে হবে।


মৃতের পিতা, পুত্র বা পৌত্র (পুত্রের পুত্র) থাকলে বোন সম্পত্তি পাবে না।


যার সম্পত্তি বন্টন হচ্ছে, তার মৃত্যুর পূর্বে তার কোন পুত্র বা কন্যা মারা গেলে, মৃত পুত্র বা কন্যার কোন সন্তান বর্তমান থাকলে, সে সন্তান ঐ পরিমাণ সম্পত্তি পাবে, যা তার  পিতা বা মাতা জীবিত থাকলে পেত।


সহোদর ভাই, বৈমাত্রেয় ভাইয়ের আগে ওয়ারিশ হবে।


কন্যা পিতার সম্পত্তির ন্যায় মায়ের সম্পত্তিতে অংশ পাবে।


মৃত ব্যক্তির পুত্র, কন্যা, পৌত্র (পুত্রের পুত্র) অথবা দাদা বর্তমান থাকলে বৈমাত্রেয় বা বৈপিত্রেয় ভাই-বোন কোন সম্পত্তি পাবে না।


কোন উত্তরাধিকারী সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হবে, যদি সে-

(ক) যার সম্পত্তি তাকে হত্যা করে

(খ) ভিন্ন ধর্ম গ্রহণ করে।


পিতা ও মাতা না থাকলে, নানী (মাতার মাতা) ও দাদী (পিতার মাতা) থাকলে, উভয়ে একত্রে (১/৬) ছয় ভাগের এক ভাগ পাবে।


 

আসাবা বা অবশিষ্টাংশ প্রাপকঃ

মুসলিম আইন অনুযায়ী অংশীদারগনের মধ্যে সম্পত্তি বন্টনের পর যে সকল ব্যক্তি ওয়ারিশ হিসেবে অবশিষ্টাংশ সম্পত্তি পান, তাদেরকে আসাবা বা অবশিষ্টাংশ প্রাপক বলে।

মোট ৭ শ্রেণীর ব্যক্তি আসাবা হিসেবে অবশিষ্টাংশ সম্পত্তি পেয়ে থাকেন। নিম্নে এদের তালিকা দেয়া হল-

১। পুত্র, পুত্রের পুত্র… এভাবে নিচের দিকে

২। পিতা

৩। দাদা, দাদার দাদা… এভাবে ঊর্ধে

৪। সহদর ভাই বা তার পুত্র… এভাবে নিচের দিকে

৫। বৈমাত্রেয় ভাই বা তার পুত্র… এভাবে নিচের দিকে

৬। আপন চাচা বা তার পুত্র… এভাবে নিচের দিকে

৭। বৈমাত্রেয় চাচা বা তার পুত্র… এভাবে নিচের দিকে।


 

উত্তরাধিকারীর সম্পত্তির অংশের আউল বা বৃদ্ধি নীতিঃ 

কোন সম্পত্তির নির্দিষ্ট ওয়ারিশদের প্রাপ্য অংশের যোগফল যদি মোট সম্পত্তির অধিক হয়, তবে প্রত্যেকের অংশ হারা-হারি ভাবে হ্রাস করে সম্পুর্ন সম্পত্তি বন্টন করতে হয়। এভাবে সম্পত্তি বন্টনের প্রক্রিয়াকে আউল বা বৃদ্ধি বলে।


 

উত্তরাধিকারীর সম্পত্তির অংশের রদ বা হ্রাস নীতিঃ 

কোন সম্পত্তিতে যদি মৃত ব্যক্তির আসাবা ওয়ারিশ না থাকে এবং নির্দিষ্ট ওয়ারিশদের প্রাপ্য অংশের যোগফল যদি মোট সম্পত্তি হতে কম হয়, তবে প্রত্যেকের অংশ হারা-হারি ভাবে বৃদ্ধি করে সম্পুর্ন সম্পত্তি বন্টন করা হয়। এভাবে সম্পত্তি বন্টনের প্রক্রিয়াকে রদ বা হ্রাস বলে।


 

 

কতিপয় ভুল ধারনাঃ

১। স্বামীর মৃত্যুর পর বিধবা স্ত্রী দ্বিতীয় বিয়ে করলে সে মৃত স্বামীর সম্পত্তি পাবে না, এটা ভুল ধারণ। অথবা স্ত্রীর মৃত্যুর পর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করলে বিপত্মীক স্বামী মৃত স্ত্রীর কোন সম্পত্তি পাবে না, এটাও ভুল ধারনা। প্রকৃতপক্ষে স্বামী-স্ত্রী সর্বাবস্থায় একে অপরের মৃত্যুর পর সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হবেন। 

২। মায়ের মৃত্যুর পর তার সম্পত্তি মেয়েরা বেশি পাবেন, এটি পুরোপুরি ভুল ধারনা। সর্বাবস্থায় সমপর্যায়ের পুরুষ সমপর্যায়ের নারীর দ্বিগুণ সম্পত্তি পাবেন। পবিত্র কুরআনের সূরা নিসার ১১ নং আয়াতে বলা হয়েছে যে, প্রত্যেক পুরুষ প্রত্যেক মহিলার চেয়ে দ্বিগুণ সম্পত্তি পাবে।


 

 

১৯৬১ সালের পূর্বে পিতা জীবিত থাকা অবস্থায় পূত্র মৃতবরণ করলে মৃত পূত্রের পূত্র অর্থাৎ জীবিত ব্যক্তির নাতি কোন সম্পত্তি পেত না। কিন্তু ১৯৬১ সালের মুসলিম পারিবারিক আইন অধ্যাদেশ এর ৪ নম্বর ধারা অনুসারে এক্ষেত্রে মৃত ব্যক্তির জীবিত সন্তান ঐ পরিমাণ সম্পত্তি পারে, তার পিতা বা মাতা জীবিত থাকলে যে পরিমাণ পেত।

[4. Succession: In the event of the death of any son or daughter of the propositus before the opening of succession, the children of such son or daughter, if any, living at the time the succession opens, shall per stirpes receive a share equivalent to the share which such son or daughter, as the case may be, would have received if alive. (The Muslim Family Law Ordinance- 1961)]

 

 

 

27,895 total views, 45 views today

87 Responses to “মুসলিম সম্পত্তির উত্তরাধিকারের নিয়মঃ”

  1. Md.Sohel
    September 18, 2019 at 6:05 am

    Sir Amar Baba Mara gese .tar uttoradikar sutre amra 2bai 1 Bon asi & Amar ma ase. akhon babar shompotti amader name neoar jonno ki korte Hobe. Amar Baba waris sutre jomi paye cilen.

    • Md. Shahazahan Ali
      September 20, 2019 at 5:33 am

      আপনার মা, ভাই, বোন মিলে রেজিস্ট্রি অফিসে গিয়ে একজন সনদপ্রাপ্ত দলিল লেখকের সহযোগিতায় একটা বন্টননামা দলিল রেজিস্ট্রি করুন। এরপর নিজেদের নামে মিউটেশন/নামজারি/খারিজ করে নিন। নিয়মিয় ভূমি উন্নয়ন কর (খাজনা) দিন। এভাবে আপনার মৃত বাবার জমি আপনাদের নামে হবে।

      • Mohammad Sohel
        September 22, 2019 at 3:32 pm

        Thanks

  2. Mohammad Sohel
    September 19, 2019 at 6:09 am

    আমার বাবা মারা গেছেন । তার সম্পত্তির উত্তরাদিকার আমরা ২ ভাই ও ১ বোন আর মা আছে। এখন এই সম্পত্তি আমাদের মধ্যে বণ্টন করার জন্য কি করতে হবে। আমার বাবা ওয়ারিশসুত্রে জমি পেয়ে ছিলেন।

    • Md. Shahazahan Ali
      September 20, 2019 at 5:20 am

      আপনাদের মোট সম্পত্তিকে প্রথমে ৮ ভাগ করুন। আপনার মা ১ ভাগ পাবে। বাকী সম্পত্তিকে আবার ৫ ভাগ করুন। আপনি ২ ভাগ, আপনার ভাই ২ ভাগ এবং আপনার বোন ১ ভাগ পাবে। এটা পরিমাণের দিক থেকে ভাগ হলো। এবার আপনার মা, ভাই এবং বোনের সাথে আলোচনায় বসে কে, কোন দাগের, কোন দিকের জমির অংশ নেবে তা ঠিক করুন। সেভাবে একজন দলিল লেখকের সহযোগিতায় “বন্টননামা দলিল” তৈরি করে ভাল ভাবে পড়ে দেখুন সব ঠিক আছে কিনা। ঠিক থাকলে আপনাদের রেজিস্ট্রি অফিসে রেজিস্ট্রি করুন।

      • Mohammad Sohel
        September 22, 2019 at 3:32 pm

        Thanks

  3. Kaisar
    November 8, 2019 at 1:36 pm

    মৃত ব্যক্তি তার ভাতিজা ও ভাই বোন রেখে নিসন্তান অবস্থায় মৃত্যু বরন করে এ ক্ষেত্রে কে কে সম্পত্তি পাবে

    • Md. Shahazahan Ali
      November 19, 2019 at 7:08 am

      সহোদর ভাই/বোন থাকলে তারাই সম্পত্তি পাবে। ভাতিজা পাবে না।

  4. Sujan
    November 17, 2019 at 2:58 pm

    Sir amar ma mara gese , tar shompod amar baba koto tuku pabe . Jemon mar shompod 35 shotangsho tahole koto tuku pabe .

    • Md. Shahazahan Ali
      November 19, 2019 at 6:52 am

      মোট সম্পত্তির চার ভাগের একভাগ মৃত ব্যক্তির স্বামী পাবে।

  5. forhad ahmed
    November 25, 2019 at 3:53 am

    মৃত ব্যক্তির ভাই আছে। এক পালিত নাবালক কন্যা আছে। এখন সম্পদের বণ্টন কিভাবে হবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      November 25, 2019 at 5:04 pm

      জীবিত অবস্থায় পালিত কন্যাকে সম্পত্তি রেজিস্ট্রি ও হস্তান্তর করে না দিলে মৃত্যুর পর পালিত কন্যা মৃত ব্যক্তির সম্পত্তি পাবে না।

  6. Touhid
    November 26, 2019 at 6:52 am

    amar baba mara geche 7years age..amra 2 vai,2 bon,amar ma and amar dadu ache..amra kivabe amader babar shomptti vag korte pari..
    baba jayga gula khorid korce jibito thaka obosthay.

    • Md. Shahazahan Ali
      November 26, 2019 at 11:38 am

      মোট সম্পত্তির মধ্যে আপনার দাদা ৬ ভাগের এক ভাগ, আপনার মা আট ভাগের একভাগ পাবে। বাকী সম্পত্তি ছয় ভাগ করে আপনি ২ ভাগ, আপনার ভাই ২ ভাগ এবং আপনার বোন প্রত্যেকে এক ভাগ করে পাবে।

  7. Touhid
    December 21, 2019 at 9:48 am

    jonab,
    ma er shompotti 2 chele and 2 meyer vetor kivabe bonton hobe?
    dhonnobad

    • Md. Shahazahan Ali
      December 21, 2019 at 2:29 pm

      মোট সম্পত্তিকে ৬ ভাগে ভাগ করুন। প্রত্যেক ছেলে দুই ভাগ এবং প্রত্যেক মেয়ে একভাগ করে পাবে।

  8. Wahid Ullah
    January 3, 2020 at 7:12 pm

    সার আমার বাবা মারা গেসে। আমার মা আছে ও আমরা ৭ ভাই ও ৩ বোন। আমাদের সম্পদ কি ভাবে ভাগ করবো

    • Md. Shahazahan Ali
      January 31, 2020 at 4:33 pm

      প্রথমে মোট সম্পত্তিকে ৮ ভাগ করুন এবং আপনার মাকে ১ ভাগ দিন। বাকী সম্পত্তি যা থাকবে তা আবার ১৩ ভাগ করুন। প্রত্যেক ভাই ভাবেন দুই ভাগ এবং প্রত্যেক বোন পাবেন ১ ভাগ।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  9. abu bakkar
    January 5, 2020 at 8:47 am

    কামাল মারা যাওয়ার পর তার ওয়ারিশ রেখে জান চাচাতো ভাই করিম ও ফুফাতো ভাই রহিমকে।এখন কে কতটুকু সম্পদ পাবে।নাকি রহিম সম্পদ পাবে না।

    • Md. Shahazahan Ali
      January 27, 2020 at 6:01 pm

      চাচাত ভাই পাবে। ফুফাত ভাই পাবে না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  10. ফারহাদ রেযা
    January 17, 2020 at 7:44 pm

    জনাব,
    নিঃসন্তান তার বউকে তালাক দেবার কিছুদিন পর মারা গেছেন। উনার মা এবং চার ভাই ও চার বোন জীবিত আছেন। এখন সম্পত্তির ভাগ কিভাবে হবে? দয়া করে জানাবেন

    • Md. Shahazahan Ali
      January 27, 2020 at 5:45 pm

      মা মোট সম্পত্তির আট ভাগের এক ভাগ পাবেন। বাকী সম্পত্তি মোট বার ভাগ করে প্রত্যেক বোন এক ভাগ করে এবং প্রত্যেক ভাই দুই ভাগ করে পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  11. সোহেল রহমান
    January 18, 2020 at 10:31 am

    *আমার ফুপুর কোন সন্তান নেই স্বামী ও মারা গেছেন। উনার সম্পত্তি কিভাবে ভাগ হবে?
    উনার ৫ বোন (২ বোন মৃত,৩ জন জীবিত) ও ২ ভাই আছেন।
    এছাড়া আর কেউ নাই। উনার সম্পদ কিভাবে বন্টন হবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      January 27, 2020 at 5:49 pm

      জীবিত তিন বোন ও দুই ভাই পাবে। সম্পত্তি মোট সাত ভাগ করে প্রত্যেক বোন এক ভাগ করে এবং প্রত্যেক ভাই দুই ভাগ করে পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  12. Sajjad
    February 5, 2020 at 10:17 pm

    Sir,
    Amar baba mara gesen 2005 e r amar dadi mara gesen 2006 e.
    Amra 2 vai 3 bon o amar maa ase.
    Akhon amar babar shompotti ki amar mrito dadir uttorodikari hishabe amar chacha ba fufu ra paben???

  13. মো:কামাল আহমদ
    February 14, 2020 at 3:29 pm

    মৃত চাচা বিবাহ করেন নাই অনার জায়গা কি মৃত ভাইয়ের সন্তানরা পাই আর ভাই বোন আছে দাদ দাদী মৃত

  14. Nayeemur Rahman
    February 16, 2020 at 5:38 pm

    Sir amar nanu mara gecen, tar somporti tar 7 jon cele meyera kivabe paben? Cele 3 jon r meye 4 jon…

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 3:59 pm

      মোট সম্পত্তি ১০ ভাগ করে প্রত্যেক ছেলে দুই ভাগ এবং প্রত্যেক মেয়ে এক ভাগ করে পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  15. মো:কামাল আহমদ
    February 17, 2020 at 8:01 pm

    জনাব। মৃত চাচা বিবাহ করেন নাই অনার জায়গা কি মৃত ভাইয়ের সন্তানরা পাবেন, মা বাবা মৃত ; ভাই বোন আছে

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 3:45 pm

      সহোদর ভাই-বোন থাকলে তারা পাবেন, তারা মৃত হলে ভাইয়ের সন্তানেরা পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  16. Mohammad Ariful Islam
    February 20, 2020 at 3:29 am

    মেয়ে বাবার সম্পত্তি কতটুকু পাবে?
    যদি তার কোন ভাই বা বোন না থাকে এবং তার মাও না থাকে?
    এবং তার যদি চাচা বেচে না থাকে তাহলে তার চাচাত ভাই কতটুকু পাবে এবং চাচাতো ভাই এর সাথে ফুফু ও কি অংশীদার হবে?
    মেয়ের মা, না থাকার কারনে মায়ের 1/8 অংশের হিসাব কি হবে?ধন্যবাদ

    Please suggest with reference.

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 3:38 pm

      আপনি লেখা মতে, মৃতের মেয়ে, সহোদর বোন এবং মৃত সহোদর ভাইয়ের ছেলে অর্থাৎ ভাতিজা বেচে আছে। এক্ষেত্রে মৃতের মেয়ে ও সহোদর বোন সম্পত্তি পাবেন, ভাতিজা পাবেন না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  17. Sagor
    February 26, 2020 at 10:09 pm

    জনাব,আমার নানার দুই স্ত্রী,চার ছেলে,চার মেয়ে।১ম স্ত্রী আমার নানার আগে মৃত্যুবরণ করেছে,এক্ষেত্রে ১ম স্ত্রী কি আমার নানার সম্পত্তি পাবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 2:43 pm

      মৃত ১ম স্ত্রী সম্পত্তি পাবেন না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  18. Touhid
    February 27, 2020 at 4:43 am

    amar babar name jayga.amra oi name thik rekhe 4 vai bon,ma and dadu ki khotiun korte parbo?kivabe ki diye suru korbo?

  19. হাসান
    February 27, 2020 at 10:23 am

    আমার নানী তার বাবার একমাত্র কন্যা তাই তার চাচারা ব্রাদারি পেয়েছে, তার পর আমার মা আমার নানীর একমাত্র কন্যা এখন আমার নানীর চাচতো ভাই তার সম্পত্তির কত অংশ পাবে।

  20. সিয়াম
    March 2, 2020 at 9:10 am

    আসসালামু আলাইকুম,
    স্যার
    আমার আব্বুর ফুফুর কোন সন্তান নেই,তাছারা তার স্বামীও নেই।এবং আমার দাদা ও দাদার ভাই কেউ বেঁচে নাই।
    আমার আব্বুর ২ বোন(আপন),২ বোন চাচাতো আছে। এখন কিভাবে আমার আব্বুর ফুপুর সম্পদ বন্টন করতে হবে।

    • Md. Shahazahan Ali
      March 27, 2020 at 6:36 am

      আপনার ফুফুর মা বেচে আছে কিনা কিংবা অন্য কোন ওয়ারিশ আছে কিনা লিখেন নাই। আপনি নিচের ফেসবুক গ্রুপে গিয়ে প্রশ্ন করতে পারেন। উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  21. পিকু
    March 6, 2020 at 3:36 pm

    করিমের এক ছেলে এক মেয়ে। পিতা (করিম) জীবিত থাকতে মেয়ে ২ কন্যা, ১ স্বামী রেখে মারা যায়। কিছুদিন পর করিম মারা যায়, এখন মৃত মেয়ের স্বামী কি ওয়ারেশ হবে?

  22. পিকু
    March 6, 2020 at 3:54 pm

    যার সম্পত্তি বণ্টন হচ্ছে সে মরার আগেই তার একটি মেয়ে দুই কন্যা ও এক স্বামী রেখে মারা গিয়েছিল। এখন পিতার আগে মৃত মেয়ের স্বামী কি ওয়ারেশ হবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 3:20 pm

      মৃত কন্যার সন্তানেরা ওয়ারিশ হবে, স্বামী সম্পত্তি পাবে না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  23. মোঃ সুমন
    March 10, 2020 at 1:53 pm

    *আমার একজন দাদীর কোন সন্তান নেই স্বামী ও মারা গেছেন। উনার সম্পত্তি কিভাবে ভাগ হবে?
    উনার ২ বোন (২ বোন মৃত) ও ৪ ভাই (৩ ভাই মৃত,১ জন জীবিত) আছেন।
    এছাড়া আর কেউ নাই। উনার সম্পদ কিভাবে বন্টন হবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 2:33 pm

      আপনি উল্লেখ করেছেন, একজন ভাই ছাড়া কেউ জীবিত নেই। সুতরাং জীবিত ভাই সমস্ত সম্পত্তি পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  24. মুহাম্মদ শফিউল্লাহ
    March 10, 2020 at 7:31 pm

    সৎ ভাই আর আপন ভাইএর মধ‍্যে উত্তরাধিকারি কে হবে? অনুগ্রহ করে জানাবেন।

  25. Touhid
    March 12, 2020 at 7:09 am

    amar dadur jayga amra 2 nati kivabe pete pari?dadu nij icchay dite chay

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 2:35 pm

      হেবার ঘোষণাপত্র দলিলের মাধ্যমে রেজিস্ট্রি করে নিতে পারেন, খরচ কম হবে।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  26. Touhid
    March 16, 2020 at 6:11 am

    Amar dadu tar Shompotti amder 2vai k diye dite chay..kon process a uni amader k dibe?

  27. ratem
    March 17, 2020 at 9:52 am

    sir,অামার দাদা জীবিত অবস্থায় তার এক মেয়ে মারা গেছে। মৃত মেয়ের husband জীবিত,এক পুত্র ও এক মেয়ে আছে। দাদা মরার পরে মৃত মেয়ের husband কী অংশ পাবে এবং কতটুকু পাবে।

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 6:10 am

      ছেলে-মেয়েরা পাবেন। মৃতের স্বামী পাবেন না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  28. Chowdhury
    March 23, 2020 at 7:04 am

    আমার চাচা মারা গেছেন কিন্তু দাদা জীবিত আছেন,চাচার ছেলেমেয়ে আছে তারা তো এখন চাচা যে পরিমাণ সম্পতি পেত সেটা পাবে।
    কিন্তু আমার প্রশ্ন হলো যদি সম্পতি ভাগ করে বা রেজিষ্ট্রি করে দেয়ার আগেই দাদা ও মারা যান তাহলে আমার চাচার ছেলেমেয়েরা কি সম্পত্তি পাবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 6:04 am

      পাবেন, আপনার চাচা বেঁচে থাকলে যতটুকু পেতেন ততটুকুই আপনার চাচাতো ভাই পাবেন।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  29. Touhid
    March 24, 2020 at 3:32 am

    Sir,
    owarishder signature and image chara ki Namjarir Abedon kora Jabe?

  30. Touhid
    March 24, 2020 at 4:02 am

    Sir,
    1.owarishder signature and image chara ki Namjarir Abedon kora Jabe?
    2.Main Dolil and Jomakharis er copy Chara ki Abedon Kora Jabe?

  31. ইবরাহিম
    March 26, 2020 at 3:09 pm

    আমার দুইটি প্রশ্নের উত্তর দিলে বাধিত হবঃ
    (১) পিতা জীবিত থাকা অবস্থায় অবিবাহিত ছেলে (৩৬ বছর) পিতার সম্পত্তি ভোগ করার জন্য ইসলামী আইন অনুযায়ী দাবি করতে পারে?
    (২) ট্রাস্টের একটি নমুনা দলিল দিতে পারলে উপকার হয়।

    আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

    https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

    • Md. Shahazahan Ali
      March 26, 2020 at 3:50 pm

      সম্পত্তির মালিকের মৃত্যুর পর কেবলমাত্র সম্পত্তির উত্তরাধিকারের প্রশ্ন আসে। সম্পত্তির মালিক জীবিত থাকলে সে অবস্থায় অন্য কেউ উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পত্তি দাবী করতে পারেন না।

      আপনার পরবর্তী প্রশ্ন নিচের ফেসবুক গ্রুপে লিখতে পারেন, উত্তর পাবেন।

      https://www.facebook.com/groups/400165940533813/

  32. Saber hossain
    April 4, 2020 at 4:02 am

    Sir amar wife er baba mara gese 3 bochor hoye gese..r amar wife er baba-mar divorce hoye gese 11/12 bochor aage…1 bhai 1 bon r kew nei tader…bhaio married,but or baba mara jaoyar por theke akhon porjonto Unar sob bebsha,bank balance and jaiga sob kichui caca jethara sobai mile Doihik kore vog kortese,r tar vaio harami caca der shate mile jai pacche ta niye ache… But Amar wife kichui pacche na vai Bipode pore bon k call Kore niye giye nijer gulo Thik kore niche but pore boner shate ultai gese Shudu bole court a mamla kore tarpor nite.. Goto 2 bochor onek crisis a achi Aita jeneo Akhon iccha kore mamla korte boltese… Akhon Amar wife er koronio RA Ki?

  33. Hobby
    April 5, 2020 at 12:49 am

    A mar sot bon er ma ta Babar age Mara jai. Tai amar bon koto sompoti pabe . a mar baba KO sompoti ki tar Meyer theme pabe

  34. sarowar
    April 7, 2020 at 4:35 pm

    nishsontan wife tar husband er shompotti kivabe o kototuku pabe? husband will kore gele ki tar kono valur thakbe?

  35. MT. Sokur Masud
    April 14, 2020 at 7:58 pm

    নিঃসন্তান ব্যক্তি তার এক ভাই এবং ভাতিজাদের (আরেক মৃত ভাইএর সন্তান) রেখে মারা গেছেন, তাহার সম্পাতি কি ভাতিজারা পাবে?

  36. জাহিদ
    April 17, 2020 at 7:07 am

    আমার দাদারা ৪ ভাই । প্রথমে দুই ভাই একাধিক সন্তান রেখে মারা যায়। তৃতীয় ভাই নিঃসন্তান অবস্থায় মারা যায়। চতুর্থ ভাই সবার শেষে মারা যায়। এমতাবস্থায় তৃতীয় ভাই এর সম্পত্তির বন্টন কি ?

  37. মোঃ রাজন সরকার
    May 17, 2020 at 11:50 am

    জনাব,
    মৃত ব্যক্তির দুই স্ত্রী। ১ম স্ত্রী নিঃসন্তান এবং তিনি মারা গেছেন। তার (১ম স্ত্রী) আত্মীয় স্বজন বলতে ২ জন বৈমাত্রেয় ভাই এবং ২ জন বৈমাত্রেয় বোন জীবিত আছেন। ২য় স্ত্রীর ১ পুত্র। এমতাবস্থায় ১ম স্ত্রীর আত্মীয় স্বজনেরা মৃত ব্যাক্তির (স্বামীর) সম্পত্তিতে কোনো অংশ পাবেন? মৃত ব্যাক্তি (স্বামী) ১ম স্ত্রীকে কোনো সম্পত্তি দলিল করে যান নি।

    • Md. Shahazahan Ali
      May 23, 2020 at 3:23 pm

      প্রথম (নিঃসন্তান) স্ত্রী স্বামীর পূর্বে মারা গেলে তার ওয়ারিশগণ সম্পত্তি পাবেন না। স্বামীর পরে অর্থাৎ স্বামীর সম্পত্তি প্রাপ্ত হয়ে মারা গেলে তার বৈমাত্রেয় ভাই-বোন সম্পত্তি পাবেন।

  38. RUHUL
    May 20, 2020 at 6:12 am

    এক মহিলা, ২ছেলে ও ২ মেয়ে সন্তান রেখে মারা যান। মহিলার স্বামী তার পূর্বেই মারা গেছেন। এ মহিলার সম্পদের অংশ কেমন হবে?

    • Md. Shahazahan Ali
      May 23, 2020 at 2:41 pm

      অন্য কোন ওয়ারিশ না থাকলে মহিলার ছেলে-মেয়েরা তাদের পিতা-মাতার সকল সম্পত্তি পাবেন। মোট সম্পত্তি ছয় ভাগ করে প্রত্যেক ছেলে পাবেন দুই ভাগ করে আর প্রত্যেক মেয়ে পাবেন এক ভাগ করে।

  39. Munshi Ekram
    May 23, 2020 at 2:17 pm

    Amra 4 bhai bon,1 bhai 3 bon,r ma ache mrito babar sompotti kivabe vaag korbo?

    • Md. Shahazahan Ali
      May 23, 2020 at 2:32 pm

      মোট সম্পত্তি প্রথমে আট ভাগ করে আপনার মাকে এক ভাগ দিন। বাকী সম্পত্তিকে ৫ ভাগ করুন। প্রত্যেক বোন এক ভাগ করে এবং ভাই দুই ভাগ পাবেন।

  40. najma jahan runa
    July 2, 2020 at 12:33 am

    ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী আমার হাসবেন্ড তার জীবদ্দশায় আমাকে কোন সম্পত্যি দান/হেবা করতে পারবে কি?

    এখন আমি আমার হাসবেন্ড থেকে পাওয়া সেই সম্পত্যি আমার মেয়েদেরকে দান/হেবা করতে পারব কি?(আমাদের কোন ছেলে নেই)

    দয়া করে কুরআন ও সুন্নার আলোকে জানাবেন।

  41. Dania
    July 7, 2020 at 2:16 pm

    আমরা চার বোন আমার কোনো ভাই নাই আমার বাবা মারা গেসে আমার কোনো চাচা নাই এখন কি আমাদের সম্পত্তি থেকে আমার দুই ফুপু পাবে

    • Md. Shahazahan Ali
      July 12, 2020 at 5:06 am

      আপনার বাবা মৃত্যুর সময় তার কে কে ওয়ারিশ বেচে ছিল, লিখুন।

  42. Md. Bahadur Mia
    July 8, 2020 at 7:43 pm

    অসিমউদ্দিন এর
    রহিম – করিম দুই ভাই
    রহিম এর দুই স্ত্রী
    করিমের এক স্ত্রী
    রহিমের দুই স্ত্রীর দুই মে
    হাজেরা – আম্বিয়া
    করিমের ৩ ছেলে
    জব্বার, আলম, আলমগীর,
    রহিমের দুই মে যথাক্রমে ৪১.৪২ শতাংশ জমি পাইছে,
    হাজেরার কোন ওয়ারিস নাই ছেলে, মেয়ে, সামি, সহদর ভাই, বোন নাই, আছে বৈমাত্রেয় বোনের ছেলে মেয়ে, আর চাচা করিমে ছেলে
    আমার প্রশ্ন হাজেরার সম্পদের অংশ তার বৈমাত্রেয় বোনের ছেলে মেয়ে পাবে কি না, যদি পায় কত অংশ পাবে

    • Md. Shahazahan Ali
      July 9, 2020 at 4:38 am

      আপনার প্রশ্ন স্পষ্ট নয়। মৃত্যুর সময় হাজেরার কে কে বেঁচে ছিল লিখুন। আপনি ফেসবুক গ্রুপ ‘মাটির পাঠশালা’য় যুক্ত হতে পারেন।

  43. করিম
    July 13, 2020 at 6:54 am

    আচ্ছা আমাদের দেশের সংবিধান বা আইনের ভিত্তিতে সম্পত্তি বন্টনের নিয়ম আর মুসলিম আইনের নিয়মের মধ্যে কি কোন সংঘর্ষ আছে নাকি দুইক্ষেত্রেই একই নিয়মের কথা বলা হয়েছে?

    • Md. Shahazahan Ali
      July 29, 2020 at 5:08 pm

      মুসলমানদের সম্পত্তির উত্তরাধিকার আইন কোরআন, সুন্নাহ, ইজমা ও কিয়াস এর উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত। তবে ১৯৬১ সালের মুসলিল পারিবারিক আইন দ্বারা শরীয়া আইনে সামান্য পরিবর্তন ঘটানো হয়েছে।

  44. Fakhrul Islam
    July 28, 2020 at 1:31 am

    DEAR SIR,
    AFTER MY FATHER DEATH WE ARE THREE . MY MOTHER ME AND MY YOUNGER SISTER. WARISAN CERTIFICATE HAS BEEN WITHDRAWN FROM CITY CORPORATION. NOW WE (3) WANT TO SELL SOME PROPERTY , WHICH IS BELONGS TO MY FATHER NAME.
    MY QUERIES ARE:
    1. HOW TO TRANSFER THE NAME IN BETWEEN US AS PER RULES
    2. DO I NEED SUCCESSION CERTIFICATE FOR THAT, BECAUSE IT TAKES 4/5 MONTHS. (we need to sell early)
    3. to sell my property i need to do a deed of agreement with the buyer, legaly is this possible right at the moment. we 3 agreed to sell obviously, and will agreed to sign also.

    it will be very helpful and appriciate your quick respose.

    • Md. Shahazahan Ali
      July 29, 2020 at 5:17 pm

      আপনার মৃত পিতার সম্পত্তি আপনাদের নামে ভূমি অফিস থেকে মিউটেশনের মাধ্যমে পৃথক খতিয়ান তৈরী করে অথবা পিতার নামে সর্বশেষ খতিয়ান থাকলে আপনাদের নামে মিউটেশন না করেও বিক্রয়সহ সব ধরনের কাজ করতে পারবেন।

Please Post Your Comments & Reviews

Your email address will not be published. Required fields are marked *