স্থাবর সম্পত্তি সংক্রান্ত সকল প্রকারের দলিল রেজিস্ট্রিতে ২০০ (দুই শত) টাকার স্টাম্পে নিম্ন-লিখিত লেখা সম্বলিত হলফনামা প্রিন্ট করে হলফনামার নির্দিষ্ট স্থানে হলফকারীর স্বাক্ষর ও তারিখ প্রদানের পর মূল দলিলের সাথে প্রিন্টেড হলফনামা সংযুক্ত করে রেজিস্ট্রি অফিসে সাব-রেজিস্ট্রারের নিকট দাখিল করতে হয়।

হলফকারীর স্বাক্ষরের পর দলিলের সনাক্তকারীর ঘোষণা অন্তর্ভুক্ত থাকে। এক্ষেত্রে সনাক্তকারীকেও হলফনামার নির্দিষ্ট স্থানে স্বাক্ষর করতে হয়।

 

 

(রাষ্ট্রপতির ১৯৭২ সনের ১৪২ নং আদেশ, ১৯০৮ সনের রেজিস্ট্রেশন আইনের section 52A(g) এবং ১৮৮২ সনের সম্পত্তি হস্তান্তর আইনের section 53E অনুসারে প্রদত্ত হলফনামা)

বরাবর,

…………(যে কর্মকর্তার সম্মুখে হলফনামা দাখিল হইবে তাহার পদবি ও ঠিকানাঃ

হলফকারী/হলফকারীগণের নাম, পরিচিতি ও বয়স…..

এই মর্মে ঘোষনা পূর্বক হলফনামা প্রদান করিতেছি যে, আমি/আমরা বাংলাদেশের (বা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অন্য দেশের নাগরিক হইলে উক্ত দেশের নাম) নাগরিক।

আমি/আমরা ঘোষনা করিতেছি যে,

(ক) হস্তান্তরের জন্য প্রস্তাবিত স্হাবর সম্পত্তি বাংলাদেশ দালাল (বিশেষ ট্রাইবুনাল) আদেশ ১৯৭২ (১৯৭২ সালের পিও নং ৮) এর অধিন ক্রোকের আওতাধীন নহে;

(খ) হস্তান্তরের জন্য প্রস্তাবিত স্হাবর সম্পত্তি বাংলাদেশ পরিত্যক্ত সম্পত্তি (নিয়ন্ত্রণ, ব্যবস্থাপনা ও নিষ্পত্তি) আদেশ ১৯৭২ (১৯৭২ সালের পিও নং ১৬) এর অর্থানুযায়ী পরিত্যক্ত সম্পত্তি নহে;

(গ) হস্তান্তরের জন্য প্রস্তাবিত স্হাবর সম্পত্তি আপাতত বলবত কোন আইনের অধীন সরকারে বর্তায় নাই, বা সরকারের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত হয় নাই;

(ঘ) প্রস্তাবিত হস্তান্তর আপাতত বলবত অন্য কোন আইনের কোন বিধানের সহিত সাংঘর্ষিক নহে;

(ঙ) প্রস্তাবিত হস্তান্তর বাংলাদেশ ল্যান্ড হোল্ডিং (লিমিটেশন) আদেশ-১৯৭২(১৯৭২ সালের পিও নং ৯৮) এর অনুচ্ছেদ ৫(এ) অনুযায়ী বাতিলযোগ্য নহে; এবং

(চ) হস্তান্তরের জন্য প্রস্তাবিত স্হাবর সম্পত্তির বিবরণ সঠিকভাবে বর্নিত হয়েছে এবং উহা অবমূল্যায়ন করা হয় নাই এবং উল্লিখিত সম্পত্তি হস্তান্তরকরনে আবেদনকারীর বৈধ অধিকার রয়েছে।

আমি/আমরা আরও ঘোষণা করিতেছি যে, আমি/আমরা হস্তান্তরিত সম্পত্তির নিরঙ্কুশ মালিক। অন্য কোন পক্ষের সহিত বায়না চুক্তি সাক্ষর করি নাই বা অন্য কোথাও বিক্রয় করি নাই বা অন্য কোন পক্ষের নিকট বন্ধক রাখি নাই। এই সম্পত্তি সরকারী, খাস/অর্পিত বা পরিত্যক্ত সম্পত্তি নয় বা অন্য কোন ভাবে সরকারের উপর বর্তায় নাই। দলিলে বর্ণিত কোন তথ্য ভুলভাবে লিপিবদ্ধ হইয়া থাকিলে তজ্জন্য আমি/আমরা দায়ী হইব এবং আমার/ আমাদের বিরুদ্ধে দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলা করা যাইবে। হস্তান্তরিত জমি সম্পর্কে কোন ভুল, অসত্য বা বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রদান করিয়া থাকলে প্রয়োজনে নিজখরচায় ভুল শুদ্ধ করিয়া ক্ষতিপুরনসহ নুতন দলিল প্রস্তুত ও রেজিস্ট্রি করিয়া দিতে বাধ্য থাকিব। উল্লেখ্য দলিলে হস্তান্তরিত সম্পত্তির মূল্য কম দেখানো হয় নাই।

দলিলে বর্নিত সম্পত্তিতে আমার/আমাদের বৈধ স্বত্ব ও অধিকার বহাল আছে এবং প্রদত্ত বিবরণ আমার/আমাদের জ্ঞান ও বিশ্বাস মতে সত্য। তারিখ…

হলফকারী/হলফকারীগনের স্বাক্ষর :

 

 

সনাক্তকারীর ঘোষনাঃ

এই মর্মে ঘোষণা করিতেছি যে, হলফকারী/হলফকারীগণ আমার পরিচিত এবং আমার সম্মুখে তিনি/তাহারা দলিলে স্বাক্ষর প্রদান করিয়াছেন(বা আমি তাহার/তাহাদের বা… নং ক্রমিকধারী হলফকারীর নাম বকলমে লিখিয়া দিয়াছি)।

সনাক্তকারীর স্বাক্ষরঃ

 

 

3,070 total views, 5 views today

4 Responses to “দলিলের হলফনামা (Affidavit)”

  1. Md. Nasir Uddin
    April 11, 2019 at 3:54 am

    সালাম নিবেন, অত্যন্ত আশান্বিত হয়ে লিখছি । আমার বৈমাত্রেয় ভাই ০৩জন (২০১১) আমি ও আমার নিজ বোনকে ১২ শতক জমি হেবা ঘোষণা করেন (উল্লেখ্য যে উক্ত জমি আমরা ক্রয় করেছি রেজিষ্ট্রেশন খরচ কমানোরজন্য এমনটা করা) এবং উক্ত জমি ভিটা শ্রেণীর কিন্তু রেজিষ্টি করা ধানী / নাল শ্রেণী হিসেবে। এখন উক্ত দলিল টিকবে কিনা? না টিকলে পরামর্শ কি জানালে কৃতজ্ঞ থাকব।

    • Md. Shahazahan Ali
      April 24, 2019 at 5:52 am

      আপনার প্রশ্নটি অস্পষ্ট মনে হচ্ছে।

      প্রথম কথা হলো- বৈমাত্রেয় ভাই-বোনকে হেবার ঘোষনা দলিল রেজিস্ট্রির মাধ্যমে সম্পত্তি দান করা যায় না।

      দ্বিতীয়ত- হেবার ঘোষণা দলিলের রেজিস্ট্রি খরচ সম্পত্তির মূল্যের উপর নির্ভর করে না। সম্পত্তির মূল্য যতই হোক, রেজিস্ট্রি খরচ নির্ধারিত। সম্পত্তির মূল্য কম দেখানোর জন্য জমির শ্রেণী পরিবর্তনের কোন কারণ আমি দেখছি না।

      এক্ষেত্রে যেহেতু সরকারি রাজস্ব ঘাটতি হয়নি, তাই শ্রেণি পরিবর্তন করার কারনে বড় কোন সমস্যা হবে না।
      তবে দলিলটি যদি বৈমাত্রেয় ভাই-বোনের মধ্যে হয়ে থাকে, সেটি আইন লংঘন করে রেজিস্ট্রি হয়েছে বিধায় তা আইনে টিকবে না।

  2. মহসিন
    September 7, 2019 at 9:04 am

    আমি আমার চাচাত ভাইয়ের সাথে জমি এজ বদল করতে চাই, এজন্য আমাকে কি করতে হবে, আর দলিল লেখার নিয়ম/ফরম্যাট আমাকে দেন

Please Post Your Comments & Reviews

Your email address will not be published. Required fields are marked *