সম্পত্তির (জমি, প্লট ও ফ্লাট এর ) সর্বনিম্ন বাজার মূল্য (সরকারী মূল্য):

 

ব্যক্তিমালিকানাধীন সম্পত্তিঃ 

১। ব্যক্তিমালিকানাধীন কোন জমির বাজার মূল্য সংশ্লিষ্ট জমি যে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের স্থানীয় অধিক্ষেত্রের আওতাভুক্ত, সেই সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে “সম্পত্তির সর্বনিম্ন বাজারমূল্য নির্ধারণ বিধিমালা, ২০১০” এর অধীন প্রস্তুতকৃত বাজারমূল্য অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। এক্ষেত্রে কোন জমি বা প্লটের সরকার নির্ধারিত সর্বনিম্ন মূল্য কত তা সংশ্লিষ্ট জমিখন্ড বা প্লট যে রেজিস্ট্রি অফিসের অধীন সেই রেজিস্ট্রি অফিস থেকে জানা যাবে। রেজিস্ট্রি অফিসে সাধারণত সংশ্লিষ্ট এলাকার বিভিন্ন মৌজার সকল জমির শ্রেণী ভিত্তিক সর্বনিম্ন বাজার মূল্য বা সরকারী মূল্য তৈরী করা থাকে।

২। ব্যক্তিমালিকানাধীন কোন ভূমির উপরস্থ স্থাপনা বা ফ্লাটের ক্ষেত্রে স্থাপনা বা ফ্লাট হস্তান্তরকারী কর্তৃক নির্ধারিত মূল্য বাজারমূল্য হিসেবে গণ্য হবে, তবে ‘সম্পত্তির সর্বনিম্ন বাজারমূল্য নির্ধারণ বিধিমালা, ২০১০’ এর উপবিধি ৩ (৪) অনুযায়ী ব্যক্তি কর্তৃক স্বনির্ধারণী বাজার মূল্য প্রতি বর্গফুটের জন্য ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকার জন্য ১,৫০০ (এক হাজার পাঁচশত) টাকা, অন্যান্য শহরাঞ্চলের জন্য ১,২০০(এক হাজার দুইশত) টাকা এবং মফস্বল এলাকার জন্য ১,০০০ (এক হাজার) টাকার কম হবে না।

 

সরকারী সম্পত্তিঃ সরকারি মালিকানাধীন কোন সম্পত্তির বাজারমূল্য সরকার কর্তৃক বা প্রকাশ্য নিলামের দ্বারা নির্ধারিত হয়।

 

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন সম্পত্তিঃ 

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রনালয় তাদের গত ২৪.০৮.২০১৫ তারিখের এস,আর,ও, নং ২৬৭-আইন/২০১৫ এর মাধ্যমে প্রচারিত গেজেটে, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের গণপূর্ত অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনাধীন সম্পত্তির বাজার মূল্য, উক্ত সম্পত্তির সংশ্লিষ্ট সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের স্থানীয় অধিক্ষেত্রের আওতাভুক্ত ব্যক্তিমালিকানাধীন সম্পত্তির জন্য ধার্যকৃত বাজারমূল্যকে নির্ধারণ করেছেন।

 

1,342 total views, 3 views today

Share this Post :

No comments yet.

Please Post Your Comments & Reviews

Your email address will not be published. Required fields are marked *